তথ্য প্রযুক্তিজাতীয়

জাতীয় পরিচয়পত্র সেবা এখন অনলাইন ও এসএমএস এ

বিশ্বজুড়ে চলছে করোনার মহামারী। করোনাভাইরাস এর এই সঙ্কটে এক মাস বন্ধ থাকার পর অনলাইন ও এসএমএসের মাধ্যমে ভোটারদের জাতীয় পরিচয়পত্র সেবা চালু হয়েছে।

অনলাইনে বা এসএমএস এর মাধ্যমে এ বছর যুক্ত হওয়া ৭০ লাখ নতুন ভোটার তাদের এনআইডি নম্বর সংগ্রহ করতে পারবেন। পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে মূল পরিচয়পত্র সংগ্রহ করতে পারবেন নাগরিকরা।

জাতীয় পরিচয় নিবন্ধন অনুবিভাগের মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোহাম্মদ সাইদুল ইসলাম সোমবার ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে সাংবাদিকদের জানান নতুন ভোটার হাওয়া, হারানো কার্ডের ডুপ্লিকেট সংগ্রহ, সংশোধনসহ অন্যান্য সেবার ক্ষেত্রেও এ প্রক্রিয়া চলবে।

করোনা ভাইরাস এর বিস্তার রুখতে সরকার ২৬ মার্চ থেকে ‘সাধারণ ছুটি’ ঘোষণা করলে জাতীয় পরিচয়পত্র সেবাও বন্ধ হয়ে যায়।

এনআইডি উইংয়ের মহাপরিচালক বলেন, সরকার ছুটির মেয়াদ ৫ মে পর্যন্ত বাড়ালেও ছুটির মধ্যেই অনলাইনে পরিচয়পত্র সংশোধন, তথ্য হালনাগাদের আবেদন ও অনলাইন কপি ডাউনলোড করার মত সেবা চালু থাকবে।

এসএমএস ও অনলাইনের মাধ্যমে এই সেবা দেওয়া হবে।
এনআইডি উইংয়ের ওয়েবসাইটে (https://services.nidw.gov.bd) গিয়ে অনলাইনে এই সেবা পাওয়া যাবে।

যেভাবে মিলবে সেবাঃ

জাতীয় পরিচয়পত্রের কপি সংগ্রহ (ভোটার হিসেবে নিবন্ধিত হয়েছেন কিন্তু এনআইডি কার্ড পাননি); জাতীয় পরিচয়পত্র নম্বর সংগ্রহ, জাতীয় পরিচয়পত্র সংশোধন, হারানো জাতীয় পরিচয়পত্রের জন্য আবেদন এবং নতুন ভোটার নিবন্ধন

মোবাইলে এসএমএসের মাধ্যমে NID নম্বর পাওয়ার পদ্ধতি

nid <formNo> <dd-mm-yyyy> লিখে 105 নম্বরে পাঠাতে হবে। ফিরতি SMS এর মাধ্যমে NID নম্বর পাবেন ভোটার।


আরোও পড়ুনঃ বিদেশে স্কলারশীপ এর জন্যে প্রিপারেশন


নতুনদের এনআইডি কপি সংগ্রহঃ

গত ২ মার্চ সর্বশেষ হালনাগাদ করা ভোটার তালিকায় অন্তর্ভুক্ত হওয়া ৬৯ লাখ ৫৮ হাজার ৩৪১ জন নতুন ভোটারের মধ্যে যারা কার্ড পাননি, তারা তাদের নিবন্ধন ফরম নম্বর ও জন্ম তারিখ দিয়ে অনলাইনে রেজিস্ট্রেশন করবেন।

পরে বায়োমেট্রিক তথ্য যাচাই শেষে এনআইডি কপি বা নম্বর পাবেন তারা। তবে দ্বৈত ভোটার হলে এনআইডি কপি বা নম্বর পাওয়া যাবে না।

=> যারা রেজিস্ট্রেশন করেছেন কিন্তু NID কার্ড পাননি তারা (https://services.nidw.gov.bd) ওয়েবসাইটে ‘অন্যান্য তথ্যের’ ট্যাবে গিয়ে NID নম্বর লিংকে Form নম্বর ও DOB (Date of Birth) দিলে NID নম্বর পাবেন ।

=> যারা NID নম্বর পেয়েছেন, তারা (https://services.nidw.gov.bd) ওয়েবসাইটে তথ্য ও মোবাইল নম্বর দিয়ে রেজিস্ট্রেশন করে login করতে পারবেন । login এর পর আবেদনকারী তার ফরমের এন্ট্রি করা সকল ডেটা দেখতে পাবেন। রেজিস্ট্রেশন করা ব্যক্তি যদি আগে কার্ড না পেয়ে থাকেন, তিনি NID Copy ডাউনলোড করতে পারবেন।

হারানো ও সংশোধন পদ্ধতিঃ

জাতীয় পরিচয়পত্র হারিয়ে গেলে অথবা সংশোধন করতে চাইলে প্রয়োজনীয় দলিলপত্র সংযুক্ত করে অনলাইনে আবেদন করা যাবে। আবেদনকারী NID কার্ডের আবেদনের বর্তমান অবস্থান জানতে পারবেন। আবেদন অনুমোদিত হলে তিনি sms পাবেন এবং ওয়েবসাইট থেকে NID copy সংগ্রহ করতে পারবেন।


আরোও পড়ুনঃ আপনার সন্তানকে করোনার দুশ্চিন্তা থেকে দূরে রাখুন


নতুন ভোটার হওয়ার পদ্ধতিঃ

যেসব যোগ্য নাগরিক ভোটার তালিকায় অন্তর্ভুক্ত হননি, তারা অনলাইনে (https://services.nidw.gov.bd ) ভোটার হওয়ার জন্য নতুন নিবন্ধনের আবেদন করে রাখতে পারবেন।

পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে সংশ্লিষ্ট থানা, উপজেলা ও আঞ্চলিক নির্বাচন অফিসে গিয়ে বায়োমেট্রিক তথ্য (আঙুলের ছাপ ও চোখের আইরিশের প্রতিচ্ছবি) দিয়ে রেজিস্ট্রেশন সম্পূর্ণ করবেন। পরে তাদের আবেদন যাচাই বাছাই করে ভোটার তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করা হবে এবং জাতীয় পরিচয়পত্র দেওয়া হবে।

হেল্পলাইনঃ

রোজায় জাতীয় পরিচয় নিবন্ধন অনুবিভাগের হেল্পলাইন ১০৫ নম্বরে ফোন করে সকাল ৯টা থেকে বিকাল ৩টা পর্যন্ত সেবা পাওয়া যাবে।

দেশের ৬৪ জেলার ডেটা এন্ট্রি অপারেটরদের মোবাইল নম্বর এনআইডি উইংয়ের ওয়েবসাইটে দেওয়া রয়েছে। সংশ্লিষ্ট এলাকার আবেদন সংক্রান্ত যে কোনো প্রয়োজনে ওই নম্বরে যোগাযোগ করা যাবে।

Tags
Show More

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Close